Spread the love

মহাকাশ ভ্রমণ করতে কে না চাই। কিন্তু বিলাসবহুল মহাকাশ হোটেলে বসে মহাকাশ ভ্রমণ আসলেই অবাক করার মত।

যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ওরিয়ন স্পান একটি মহাকাশ হোটেল তৈরি করেছে। যেটাতে চড়ে মানুষ ভ্রমণ করতে পারবে মহাকাশ। দৈর্ঘ্যে ২৫ ফুট ও প্রস্থ ১২ ফুট এই হোটেলটি দেখতে ব্যক্তিগত উড়োজাহাজের মত। এতে থাকছে ২জন ক্রু সদস্যসহ একসঙ্গে  ছয়জন থাকার ব্যবস্থা। তাঁদের জন্য থাকবে ১২দিন মহাকাশ ভ্রমণের লোভনীয় ব্যবস্থা। মহাকাশে ১২ দিনের ভ্রমণে পর্যটকরা পৃথিবীকে দেখতে পাবে ২০০ মাইল ওপর থেকে। লো আর্থ অরবিটে (এলইপি) অবস্থান করে দেখা যাবে নীল গ্রহটিকে ঘিরে প্রতিনিয়ত ঘটে যাওয়া অবিশ্বাস্যসম দৃশ্য। পর্যটকরা হোটেলে বসে প্রতি ৯০ মিনিটে একবার করে পৃথিবীকে প্রদক্ষীণ করবে। ফলে তারা প্রতি ২৪ ঘন্টায় ১৬ বার সূর্যোদয় ও সূর্যাস্তের দৃশ্য দেখবে। এছাড়াও হোটেলে বসে পর্যটকরা ভিডিও চ্যাট করতে পারবেন পৃথিবীতে রেখে যাওয়া প্রিয়জনদের সাথে।

স্পেসডটকম জানায়, এই হোটেলটি ২০২১ সালে পর্যটকদের জন্য খুলে দেয়া হবে। এটি ২০২১ সালে উদ্বোধন করা হলেও অতিথিদের আমন্ত্রণ জানানো হবে ২০২২ সাল থেকে।

অরিয়ন স্পান এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফ্রাঙ্ক বানগার এক বার্তায় গণমাধ্যমকে বলেন, “আমরা চাই সবাই যেনো মহাকাশ ভ্রমণের সুযোগ পান। উদ্বোধনের পরপরই আমরা এটিকে পর্যটকদের জন্যে খুলে দেওয়ার কথা ভেবে রেখেছি। এর জন্যে এতো কম টাকা নেওয়া হবে যা কেউই কল্পনাও করতে পারবেন না।” বানগার তার বার্তাটিতে বলেন, “পর্যটকদের মহাকাশ ভ্রমণের জন্যে প্রস্তুত করতে ২৪ মাসের একটি প্রস্তুতি প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়ে থাকে। কিন্তু, আমরা সেটি কমিয়ে তিনমাসে নিয়ে আসবো। ফলে খরচটাও কমে যাবে কয়েকগুণ।” এই ভ্রমণে কত খরচ হতে পারে তা বার্তায় উল্লেখ না হলেও ধারণা করা হচ্ছে তা জনপ্রতি ৮০ হাজার ডলারের মত হতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here