Spread the love

তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে হ্যাকারদের হামলার শিকার হচ্ছে অনেকেই। দিন দিন এর আশঙ্কা বেড়েই চলেছে। হ্যাকাররা সাধারণত অন্যের সাইট হ্যাক করে অর্থ হাতিয়ে নেই। হ্যাকার মানেই আমরা মনে করি খারাপ দিক। কিন্তু ভাল হ্যাকারও রয়েছে। একজন হ্যাকার যেমন একটা সাইটের খারাপ করতে পারে তেমনি ভালও করতে পারে। তেমনই একজন বৈধ হ্যাকার হল আর্জেন্টাইন স্যান্টিয়াগো ।

১৯ বছর বয়সে বৈধ হ্যাকিং করে কোটিপতি এই যুবক। বর্তমানে সে তার বৈধ হ্যাকিং করে বিশ্বের নজর কেড়েছে।

স্যান্টিয়াগো বলেন, আমি সিনেমার হ্যাকারদের মত হতে চায় না।  আপনার হ্যাকিং দক্ষতা কি কখনো অন্যায় কাজ করতে প্রলুব্ধ করেছে এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, প্রথম দিকে আমি কিছুটা প্রলুব্ধ হয়েছিলাম। কিন্তু পরে অনলাইনে বাগ খোজে বের করার প্রতি আগ্রহ বেড়ে যায়।

হ্যাকিংয়ে প্রতি তার আগ্রহ অনেক বেশি ছিল। কিন্তু সে সব সময় ভাবতো তার হ্যাকিংয়ে যেন কারো কোন ক্ষতি না হয় বরং উপকারও যেন তার মূল লক্ষ।স্যান্টিয়াগো লোপেজ অনলাইনে বাগ বা ত্রুটি খোঁজে বের করে তার সমাধান করে দিয়ে থাকেন। ফলে কোম্পানি বা ইন্ডাস্ট্রির সকল তথ্য সুরক্ষিত রাখতে সিক্উরিটি প্রোটেক্ট হয় আরো শক্তিশালী। স্যান্টি পৃথিবীর সেরা কিছু ওয়েবসাইট থেকে ১৬০০’র বেশি ত্রুটি বের করেছেন।

বৈধ হ্যাকিং করে সে কয়েক হাজার ডলার উপার্জন করেন। যা আর্জেন্টিনার মানুষের গড় আয়ের ৪০ গুন বেশি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here