Spread the love

গত বছরের ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের বেপরোয়া বাসের চাপায় দুই শিক্ষার্থীর নিহত হওয়ার পর দেশজুড়ে নিরাপদ সড়ক দাবিতে যে আন্দোলন গড়ে উঠেছিল, সেই আন্দোলনে শামিল ছিলেন আবরারও। কিন্তু আদো কি সড়ক নিরাপদ হলো? সে আন্দোলনের বছর না গড়াতেই আবারো প্রাণ হারালো আরেক শিক্ষার্থী।

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) সকালে প্রগতি সরণির নর্দ্দা এলাকায় সুপ্রভাত পরিবহনের বেপরোয়া বাসের চাপায় নিহত হয়েছেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র আবরার আহমেদ চৌধুরী।

জানা যায়, আবরার তার বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে উঠতে যাচ্ছিলেন। এমন সময় সদরঘাট থেকে গাজীপুরগামী সুপ্রভাত পরিবহনের একটি বাস আবরারকে চাপা দেয়। তাকে উদ্ধার করে তাৎক্ষণিক কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও চিকিৎসকরা আবরারকে মৃত ঘোষণা করেন।

আবরারের ফেসবুক প্রোফাইলে ঢুকে দেয়া যায়, নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন চলাকালে তিনি আন্দোলনের প্রতি একাত্মতা প্রকাশ করে তার ফেসবুক প্রোফাইল পিকচার পরিবর্তন করেন। ছবির নিচে লেখা ‘নিরাপদ সড়ক চাই’। ২ আগস্ট ছবিটি পোস্ট দেন আবরার।

২০১৮-র নিরাপদ সড়ক আন্দোলন বাংলাদেশে কার্যকর সড়ক নিরাপত্তার দাবিতে ২৯ জুলাই থেকে ৮ আগস্ট ২০১৮ পর্যন্ত সংঘটিত একটি আন্দোলন বা গণবিক্ষোভ।

ঢাকায় ২৯ জুলাই সংঘটিত এক সড়ক দুর্ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে নিহত দুই কলেজ শিক্ষার্থীর সহপাঠীদের মাধ্যমে শুরু হওয়া এই বিক্ষোভ পরবর্তীতে সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ে এবং নৌমন্ত্রীর পদত্যাগসহ ৯ দফা দাবিতে শিক্ষার্থীরা রাস্তায় নেমে আসে।

৬ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তৃতীয় মন্ত্রীসভা একটি খসড়া ট্রাফিক আইন অনুমোদন করে, যে আইনে ইচ্ছাকৃতভাবে গাড়ি চালিয়ে মানুষ হত্যায় মৃত্যদণ্ড এবং বেপরোয়াভাবে চালিয়ে কারো মৃত্যু ঘটালে সর্বোচ্চ পাঁচ বছর কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়; যদিও আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বেপরোয়া চালনায় মৃত্যুদণ্ড দাবি করেছিল। ৮ আগস্টের মধ্যে শহরের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে ওঠে।

নিরাপদ সড়কের দাবিতে সোচ্চার সেই আবরারই সড়কে প্রাণ হারানোয় প্রগতি সরণির নর্দ্দা-কুড়িল চৌরাস্তার মাঝামাঝি সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভে নামেন তার সতীর্থরা। এতে সড়কের দুইপাশে দেখা দেয় যানজট। বন্ধ হয়ে যায় বাড্ডা-কুড়িল বিশ্বরোড সড়কে যান চলাচল।

উল্লেখ্য, সড়কের শৃঙ্খলা রক্ষায় রাজধানীতে গত রোববার (১৭ মার্চ) থেকে শুরু হয়েছে পঞ্চমবারের মতো ট্রাফিক সপ্তাহ। এরই মধ্যে বাসচাপায় একজন শিক্ষার্থীর মৃত্যু হলো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here