Spread the love

আজ উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকা, পশ্চিম ইউরোপ ও উত্তর আফ্রিকার দেশ গুলোতে সুপার ব্লাড উল্ফ মুন দেখা গেছে। অন্যান্য সময়ের চেয়ে এবার চাঁদ পৃথিবীর অপেক্ষাকৃত কাছে ছিল এবং কিছুটা লালচে ছিল।

সাধারণত, একই রেখায় সূর্য ও চাঁদের মধ্যবর্তী স্থান দিয়ে পৃথিবী যখন অতিক্রম করে তখন এই চন্দ্রগ্রহণ হয়। এই সময় সূর্যের স্থান হবে পৃথিবীর ঠিক নিচে এবং চাঁদ পৃথিবীর ছায়ায় পুরোপুরি নিচে চলে যায়। ছায়ায় গেলেও পৃথিবীর বায়ুমন্ডলের সাথে ধাক্কা লেগে সূর্যের সামান্য আলো চাঁদে পৌঁছায়। এই জন্য এটি লাল দেখায়। অনেকটা পুরোনো দিনের লাইট বাল্বের ভোল্টেজ কমে গেলে যে রঙ দেখায় কিছুটা তেমনই।

সাধারণ চাঁদের থেকে এটি অনেক বড় ও উজ্জ্বল হয়ে থাকে। বিজ্ঞানীরা বলছেন আকারে সাধারণ চাঁদের থেকে সাত শতাংশ আর উজ্জ্বলতায় পনেরো শতাংশ বেশি হতে পারে এমন চাঁদের।

চন্দ্রগ্রহণের সময় হবে ঘন্টাখানেক। ২০২৯ সাল পর্যন্ত এমন ‘সুপার ব্লাড উল্ফ মুন’ আর দেখা যাবে না।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here